ব্রেকিং নিউজ

চীনের কাছে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

রাশিয়া

চীনের আশার উপর পানি ঢেলে দিল রাশিয়া। বেইজিংকে এস-৪০০ ভূমি থেকে বাতাসে নিক্ষেপকারী ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ নিষিদ্ধ করল রাশিয়া। এটি চীনের জন্য বড় ধাক্কা। বিশেষ বিষয় হল এই ক্ষেপণাস্ত্রটির সরবরাহ বন্ধ হওয়ার আগে মস্কো বেইজিংয়ের উপর গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ এনেছিল। রাশিয়ান কর্মকর্তারা তাদের সেন্ট পিটার্সবার্গ আর্কটিক সোশ্যাল সায়েন্সেজ একাডেমির সভাপতি বালেরি মিটকো চীনকে গোপনীয় সামগ্রী হস্তান্তর করার জন্য দোষী বলে চিহ্নিত করেছেন। এই ঘটনাটি এর সাথে যুক্ত হচ্ছে।

অন্যদিকে, রাশিয়ার এই ঘোষণার পরে চীন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে যে মস্কো এই জাতীয় সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে। কারণ এই মুহূর্তে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহের ফলে পিপলস লিবারেশন আর্মির মহামারীবিরোধী কর্মকাণ্ড প্রভাবিত করবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। চীন আরও বলেছে যে, রাশিয়া চায় না যে এর জন্য বেইজিংয়ের কোনও সমস্যা সৃষ্টি হোক। বিভিন্ন কারণে রাশিয়াকে ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহের সিদ্ধান্ত স্থগিত করতে হয়েছে। এই ধরণের অস্ত্রের চুক্তি একটি জটিল প্রক্রিয়া। এছাড়াও কর্মীদের অস্ত্র ব্যবহারের জন্য প্রশিক্ষণ নিতে হবে। এর জন্য,কর্মীদের রাশিয়ায় প্রেরণ করতে হয়েছিল, তবে এটি করোনা মহামারীর যুগে বেশ বিপজ্জনক।

পূর্ব লাদাখে চীনা বাহিনীর রক্তাক্ত সংঘর্ষের পরে ভারতের সাথে তাদের সম্পর্ক উত্তেজনাপূর্ণ। হংকং এবং দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় দেশগুলির সাথে জাপান ও অস্ট্রেলিয়া, আমেরিকা, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়ার সাথেও তাদের সম্পর্ক খারাপ হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্রের উপর নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি চীনের জন্য উদ্বেগের বিষয় হতে পারে। রাশিয়ার এই পদক্ষেপের বিভিন্ন প্রভাব বের করা যেতে পারে।

এস-৪০০ মিসাইল সিস্টেমটি এস-৩০০ এর একটি আপডেটেড সংস্করণ। এটি ৪০০ কিলোমিটার ব্যাসার্ধের ক্ষেপণাস্ত্র এবং পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমানগুলিকেও ধ্বংস করতে সক্ষম। এই সিস্টেমটি একবারে ৭২ টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করতে পারে। সিস্টেমটি আমেরিকার সর্বাধিক উন্নত যুদ্ধবিমান এফ-৩৫ কেও টেক্কা দিতে পারে। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি একযোগে ৩৬ টি পর্যন্ত পারমাণবিক ক্ষমতা সম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করতে পারে। 

সূত্রঃ বিডি-প্রতিদিন

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»