ব্রেকিং নিউজ

দলের খেলা দেখতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ক্লাব মালিক

করোনায় আক্রান্ত ক্লাব মালিক

জনসমাবেশে যাওয়া যাবে না। বিরত থাকতে হবে হাত মেলানো থেকেও। করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে এই হলো প্রাথমিক সতর্কতা। ইভানগেলোস মারিনাকিস তা মানেননি। নিজের দলের খেলা, মন ছুটে গিয়েছিল মাঠে। ড্রেসিং রুমে হাত মিলিয়েছেন খেলোয়াড়দের সঙ্গে। ছিলেন গ্যালারিতেও। ব্যস, করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হতে আর কী লাগে!

ইংল্যান্ডে এমনিতেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গতকাল পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩১৯। রোববার থেকে একদিনে বেড়েছে ৪৬। অর্থাৎ, ইংল্যান্ডে জনসমাবেশে চলাচলের ঝুঁকি কম নেই। কিন্তু ইংলিশ ক্লাব নটিংহাম ফরেস্ট ও গ্রিক ক্লাব অলিম্পিয়াকোসের মালিক মারিনাকিস এসব বিধি-নিষেধের ধার ধারেননি।

গত শুক্রবার মিলওয়ালের কাছে নটিংহামের ৩-০ গোলে হারের ম্যাচে ছিলেন মাঠে। এ ছাড়াও গত ২৭ ফেব্রুয়ারি অলিম্পিকায়োসের কাছে হেরে আর্সেনালের বাদ পড়াও দেখেছেন এমিরেটস স্টেডিয়ামে বসে। আজ জানা গেল, করোনাভাইরাস টেস্টে ‘পজিটিভ’ হয়েছেন মারিনাকিস। অর্থাৎ করোনা সংক্রমিত হয়েছে তাঁর শরীরে। এক বিবৃতিতে নটিংহাম জানিয়েছে, ‘করোনাভাইরাস টেস্টে পজিটিভ প্রমাণিত হয়েছেন ইভানগেলোস মারিনাকিস। গ্রিসে কাল ফেরার পর কিছু লক্ষণ প্রকাশ পাওয়ার পরই কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। গত সপ্তাহে নটিংহামে থাকতে তার শরীরে এর কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি।’ মারিনাকিস নিজেও ইনস্টাগ্রামে জানিয়েছেন নিজের আক্রান্ত হওয়ার খবর।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, মিলওয়ালের বিপক্ষে ম্যাচের আগে নটিংহামের ড্রেসিং রুমে গিয়েছিলেন মারিনাকিস। হাত মিলিয়েছেন খেলোয়াড়দের সঙ্গে, জানিয়েছে টেলিগ্রাফ। অথচ, নিউক্যাসল থেকে শুরু করে কিছু ক্লাব এরই মধ্যে হাত না মেলানোর ঘোষণা দিয়েছে করোনা সংক্রমণের সাবধানতা হিসেবে। নটিংহাম খেলোয়াড়দেরও এখন শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। যেহেতু তাঁরা হাত মিলিয়েছেন ক্লাব মালিকের সঙ্গে। এর পাশাপাশি মাঠে বেশ কিছু নটিংহাম সমর্থকের সঙ্গেও হাত মিলিয়েছেন মারিনাকিস।

করোনার লক্ষণ শরীরে প্রকাশ পাওয়ার আগে ১৪দিন সুপ্ত অবস্থায় থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে ইউরোপা লিগে আর্সেনাল-অলিম্পিয়াকোস ম্যাচে মারিনাকিস যাঁদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন কিংবা শরীরী সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরও ঝুঁকি থেকে যায়। যদিও আর্সেনালের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ‘তার সঙ্গে শরীরী সংস্পর্শে আসা কারও শরীরে এখনো কোনো লক্ষণ দেখা যায়নি।’

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»