ব্রেকিং নিউজ

বিপিএলে কোন দলে খেলবেন সাকিব?

বেশ ঘটা করে বিপিএলের দল বদল করেছেন সাকিব আল হাসান। ঢাকা ডায়নামাইটসের সঙ্গে সম্পর্ক চুকিয়ে গিয়েছেন রংপুর রাইডার্সে। তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি বদলের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেনি বোর্ড সভাপতিসহ কয়েকজন প্রভাবশালী বিসিবি পরিচালকের আশীর্বাদপুষ্ট ঢাকা ডায়নামাইটস। আজ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের মিটিং শেষে বোঝা গেলে এত ঢাক ঢোল পেটানোর পরও এ মৌসুমে সাকিবের রংপুর রাইডার্সে খেলা নিশ্চিত নয়।

না, শুধু সাকিবের দলবদলই অনিশ্চয়তায় নেই। দলবদলের বাজারে জোর গুঞ্জন তামিম ইকবাল যাচ্ছেন খুলনা টাইটানসে, মুশফিকুর রহিম যাচ্ছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসে। এ ছাড়া ঢাকা ডায়নামাইটস দলে টেনেছে এউইন মরগানকে। রাজশাহী কিংস জেপি ডুমিনি, খুলনা টাইটানস এনেছে শেন ওয়াটসনকে। এসব চুক্তিও সব বাতিল বলেই গণ্য করতে হচ্ছে। কারণ, বিপিএল পরিচালনা কমিটি বলেই দিয়েছে, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে চুক্তি ছিল ষষ্ঠ বিপিএল পর্যন্ত। এরপর নতুন চুক্তি করতে হবে সবাইকে। আর নতুন চুক্তির আগপর্যন্ত কোনো দলই কোনো খেলোয়াড় টানার অধিকার রাখে না।

বিপিএলে এর আগে আইকন খেলোয়াড়েরা নিজেদের ইচ্ছেমতো দল বদল করে নিয়েছেন। টানা তিন বছর ঢাকা ডায়নামাইটসে ছিলেন সাকিব। এবার অন্যদের মতো সাকিবও ফ্র্যাঞ্চাইজি বদলেছেন। সাকিবের দলবদলের পর ঢাকা দাবি করেছিল, তারা তো খেলোয়াড় ধরে রাখার (রিটেইন) সুযোগও নিতে পারতেন। তাদের সে সুযোগ দেওয়া হয়নি। এ যুক্তিতে সাকিবের রংপুরে যাওয়া আটকাতে চেয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। তবে বিপিএল কমিটি আজ যে ব্যাখ্যা দিয়েছে, তাতে সাকিবকে ধরে রাখার সুযোগ নেই ঢাকারও।

আজ পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ছয় বছরের চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় সবাইকে নতুন করতে চুক্তি করতে হবে। আগামী দুইদিনের মধ্যে ছয় ফ্র্যাঞ্চাইজিকে (চিটাগাং ভাইকিংস না খেলার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছে) নতুন চুক্তির জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে। আরও নতুন দুই দল আনা হবে বিপিএলে। সব দলের সঙ্গে চুক্তিপত্র সাক্ষরের পরই খেলোয়াড় কেনাবেচার প্রক্রিয়া শুরু হবে। ডিসেম্বরের এ টুর্নামেন্টের দুই মাস আগেই প্লেয়ার ড্রাফট বা নিলাম ডাকা হবে। তখনই কেবলই দেশি বা বিদেশি খেলোয়াড়দের দলে টানার সুযোগ পাবে দলগুলো। এর আগে কোনো দলের সঙ্গে কোনো খেলোয়াড়ের চুক্তিই আমলে নেবে না বিপিএল। যদি নিলাম বা ড্রাফটে লটারি পদ্ধতি থাকে সে ক্ষেত্রে যেকোনো নির্দিষ্ট খেলোয়াড়কে যেকোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিই টেনে নিতে পারবে। খেলোয়াড় ধরে রাখার নীতি শুধু হবে আগামী (অষ্টম) বিপিএল থেকে।

বিপিএলের আজকের আলোচনা থেকেটা অন্তত পরিষ্কার, এবারের বিপিএলে কে কোন দলে যাচ্ছেন সেটা বলার ঝুঁকি নেওয়াটা ঠিক হবে না!

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»