ব্রেকিং নিউজ

বড় কাজে অর্থের কিছুটা অপব্যবহার হবেই: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী

পদ্মা সেতু, মেট্রোরেলের মতো বড় প্রকল্প বাস্তবায়নে অর্থের কিছুটা অপব্যবহার হওয়াটা স্বাভাবিক বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে নিজ দপ্তরে আজ সোমবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) রাষ্ট্রদূত রেঞ্জি তেরিংয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, বৃহৎ প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা ছিল না। এসব প্রকল্পে তাই কিছুটা অর্থের অপব্যবহার বা নড়চড় হবে। এটাকে স্বাভাবিক ধরে নিতে হবে। ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়াসহ অন্য দেশেও এ রকমই হয়েছে।

আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘চেষ্টা করে যাচ্ছি, কীভাবে এগুলো সীমার বাইরে না যায়। প্রধানমন্ত্রীও আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। তবে ধীরে ধীরে আমরা যখন অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করব, তখন এগুলো কমে আসবে। আর যেখানে আমাদের সংশয় রয়েছে, বিদেশি ঠিকাদার নিচ্ছি। জাপান ও চীনের কোম্পানি দিয়ে কাজ করাচ্ছি।’

দুর্নীতি না হলে দেশ আরও অনেক এগিয়ে যেত বলে প্রধানমন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন, অর্থমন্ত্রী একে কীভাবে দেখছেন—এমন প্রশ্নের জবাবে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যেভাবে দেখেছেন, আমিও একইভাবে দেখছি। প্রধানমন্ত্রী সত্য বলেছেন।’

সরকার যে পরিমাণ বিনিয়োগ করেছে, তাতে ত্রুটি-বিচ্যুতি রয়েছে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, এতে প্রবৃদ্ধি কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। জাতীয় রাজস্ব ভবন তৈরির ঠিকাদারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কারও জন্য কাজ আটকে থাকবে না।

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»