ব্রেকিং নিউজ

‘মাসুদ রানা’ ছবিতে শ্রদ্ধার অংশগ্রহন মিথ্যা

শ্রদ্ধা কাপুর

বাংলাদেশের ছবিতে অভিনয় করবেন বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা শ্রদ্ধা কাপুর। ছবির নাম ‘মাসুদ রানা’। গত ২৯ আগস্ট সকালে ফেসবুকে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার ভেরিফায়েড পেজে তা প্রকাশ করা হয়। সেদিন বিকেলেই ভারতের মুম্বাই থেকে শ্রদ্ধা কাপুর জানান, তিনি বাংলাদেশের কোনো ছবিতে অভিনয় করছেন না। প্রথম আলোর মুম্বাই প্রতিনিধিকে শ্রদ্ধা কাপুর বলেন, ‘এই ছবির ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না।’

আজ শনিবার দুপুরে ফেসবুকের মাধ্যমে জাজ মাল্টিমিডিয়া জানিয়েছে, শিডিউল জটিলতার জন্য নাকি শ্রদ্ধা কাপুর ‘মাসুদ রানা’ ছবিতে অভিনয় করতে পারছেন না। এখানে আরও জানানো হয়, এজেন্টের মাধ্যমে শ্রদ্ধা কাপুরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তিনি চুক্তি করেছেন। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী সেই এজেন্টের মাধ্যমে তাঁকে অগ্রিম সাইনিং মানি পাঠানো হয়। তিনি ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত সময় দেন। কিন্তু নভেম্বর থেকে বলিউডের অন্য সিনেমার শুটিংয়ের জন্য তিনি শিডিউল দিয়ে রেখেছেন।

আর শ্রদ্ধা কাপুরের নিজস্ব জনসংযোগ প্রতিষ্ঠান থেকে প্রথম আলোর মুম্বাই প্রতিনিধিকে জানানো হয়েছে, এটি পুরোপুরি ভুয়া খবর। এ ধরনের কোনো কাজের ব্যাপারে শ্রদ্ধা কাপুরের সঙ্গে কেউ কোনো কথা বলেননি। চুক্তি, শিডিউল কিংবা সাইনিং মানির প্রশ্নই আসে না।

ফেসবুকে জাজ মাল্টিমিডিয়ার দেওয়া তথ্য থেকেও এটা বেশ স্পষ্ট। কারণ, শ্রদ্ধা কাপুরের কাছ থেকে নাকি ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত সময় নেওয়া হয়েছে। সেখানে নভেম্বরে তিনি বলিউডের অন্য সিনেমার শুটিংয়ের জন্য যদি শিডিউল দিয়েই রাখেন, তাতে ‘মাসুদ রানা’ ছবির শিডিউল জটিলতা হওয়ার কথা না।

জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে আগেই জানানো হয়েছে, ‘মাসুদ রানা’ ছবির ৫০ ভাগ শুটিং হবে মরিশাসে। কিন্তু এবার জানা গেছে, মরিশাস শুটিংবান্ধব না হওয়ার কারণে এবার দক্ষিণ আফ্রিকার কথা ভাবা হচ্ছে। নির্মাতাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এখন ‘মাসুদ রানা’ ছবির শুটিংয়ের নতুন পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এই পরিকল্পনা অনুযায়ী বাংলাদেশে ৩০ ভাগ, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৪০ ভাগ, মরিশাসে ১০ ভাগ, থাইল্যান্ডে ১০ ভাগ আর যুক্তরাষ্ট্রে ১০ ভাগ শুটিং হবে ছবিটির।

‘মাসুদ রানা’ ছবিটি যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হবে। কিন্তু তথ্য মন্ত্রণালয়ে এখন পর্যন্ত এ–সংক্রান্ত কোনো আবেদন করা হয়নি। এবার জানা গেছে, আগামীকাল রোববার তথ্য মন্ত্রণালয়ে এই আবেদন করা হবে। সেই অনুমতি পাওয়ার পর ছবিটির যৌথ প্রযোজনা–সংক্রান্ত জটিলতার নিরসন হবে।

তবে এসব ব্যাপারে প্রকাশ্যে কোনো কথা বলতে চাননি জাজ মাল্টিমিডিয়ার একাধিক কর্মকর্তা।

অনেক দিন থেকেই শোনা যাচ্ছে, ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রটি নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ হবে। ‘মাসুদ রানা’ সিরিজের ছবির অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া থেকে আরও জানানো হয়েছে, এরই মধ্যে ছবির অনেক কিছুই চূড়ান্ত হয়েছে। যেমন ছবিটি পরিচালনা করবেন হলিউডের আসিফ আকবর। ছবির বাজেট ৮৩ কোটি টাকা। ছবিটি দুটি ভাষায় তৈরি হবে—বাংলা আর ইংরেজিতে। বাংলা ভাষায় মুক্তি পাবে বাংলাদেশ ও ভারতের কলকাতায়। সারা বিশ্বে একযোগে ইংরেজি ভাষায় ছবিটি মুক্তি পাবে। ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রে যিনি অভিনয় করবেন, তাঁকেও চূড়ান্ত করা হয়েছে। শিগগিরই তাঁর নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে।

‘মাসুদ রানা’ সিরিজের এই ছবির চিত্রনাট্য পরিমার্জন, পরিবর্তন ও পরিবর্ধন করেছেন আবদুল আজিজ, আসিফ আকবর ও নাজিম উদ দৌলা। এরপর হলিউডের পেশাদার স্ক্রিপ্ট রাইটার আর চলচ্চিত্র সমালোচকদের নিয়ে চূড়ান্ত চিত্রনাট্য তৈরি করা হয়েছে।

বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ছাড়া সহযোগী প্রযোজক হিসেবে থাকছে আরও তিনটি প্রতিষ্ঠান এবং যুক্তরাষ্ট্রের হলিউডের সিলভার লাইন। আর চলচ্চিত্রের জন্য সেবা প্রকাশনী ও কাজী আনোয়ার হোসেনের কাছ থেকে ‘ধ্বংস পাহাড়’সহ ‘মাসুদ রানা’ সিরিজের তিনটি উপন্যাসের কপিরাইট নিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»