ব্রেকিং নিউজ

সীমান্তে ২০ সেনা হত্যা: চীনকে যেভাবে জবাব দেওয়া শুরু করল ভারত

সীমান্তে ২০ সেনা হত্যা

চীনের বিরুদ্ধে বড়সড় পদক্ষেপ নিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। সূত্রের খবর, কলকাতাসহ দেশের সমস্ত বিমানবন্দর ও স্থলবন্দরে চীনা পণ্য খালাসে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির কাস্টমস। লাদাখে চীনা আগ্রাসনের জবাবেই এই পদক্ষেপ নিল ভারত।

জানা গেছে, বর্তমানে ৩৫ কোটি রুপি মূল্যের ৪০ টন চীনা পণ্য কলকাতায় আটকে রয়েছে। কলকাতা বিমানবন্দর হয়ে চীন থেকে আসা ১৮ হাজার টন পণ্যের ৬৫ শতাংশই চীন থেকে আমদানি করা। এগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য, কাপড়, সুগন্ধি দ্রব্য, যন্ত্রাংশ ও প্লাস্টিকের বস্তু।লকডাউন চলাকালীন হংকং, শেনঝেনসহ চীনের অন্যান্য প্রান্ত থেকে পিপিই কিট নিয়ে একাধিক বিমান কলকাতায় আসে।  কার্গো বিভাগের এক কর্মকর্তার কথায়, চীনা পণ্যের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হলে সাময়িকভাবে কিছুটা ক্ষতি হবে কলকাতা বিমানবন্দরের।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই অর্থনীতির ময়দানে বেইজিংকে কুপোকাত করতে ৩ হাজার চীনা পণ্য বয়কট করার ডাক দিয়েছিল ‘The Confederation of All India Traders’ (CAIT)। বয়কট করা জিনিসের এই তালিকায় রয়েছে–টেক্সটাইল, বিল্ডার হার্ডওয়্যার, ফুটওয়্যার, গারমেন্টস, রান্নাঘরের জিনিস, লাগেজ, হ্যান্ড ব্যাগ, কসমেটিক্স , গিফট, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স জিনিসপত্র।  বর্তমানে চীন থেকে ভারতে প্রতি বছর ৫ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকার পণ্য আমদানি করা হয়৷ ভারতে সস্তা জিনিসের বাজারের কথা মাথায় রেখে এই পণ্য বিক্রি করা হয়৷ ২০২১ সালের মধ্যে চীন থেকে প্রায় ১ লাখ কোটি টাকার পণ্য আমদানি কমিয়ে ফেলার লক্ষমাত্রা নিয়েছে সংগঠনটি।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

মন্তব্য করুন

সর্বশেষ খবর

সাম্প্রতিক প্রকাশনা সমূহ

   সাম্প্রতিক খবর



»